Connect with us

করোনা

শিক্ষার্থীদের বাড়ি ভাড়া, মেস ভাড়া মওকুফের দাবিতে ছাত্র ফ্রন্টের স্মারকলিপি

Published

on

করোনা পরিস্থিতিতে স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের এ বছরের বেতন-ফি মওকুফ, শিক্ষার্থীদের বাড়ি ভাড়া, মেস ভাড়া মওকুফসহ ৪ দফা দাবিতে ঢাকা জেলা প্রশাসক বরাবর অনলাইনে স্মারকলিপি জমা দিয়েছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ঢাকা নগর শাখা। বুধবার (২৯ এপ্রিল) সংগঠনটির ঢাকা নগর শাখার দপ্তর সম্পাদক নওশন সাথী এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

ছাত্র ফ্রন্টের চার দফা দাবিগুলো হলো- স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের এই বছরের বেতন-ফি মওকুফ করা, আর্থিকভাবে অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের তালিকা করে এককালীন আর্থিক সহযোগিতা করা, লকডাউন পরিস্থিতিতে ছাত্রদের বাড়ি ভাড়া-মেস ভাড়া মওকুফের লক্ষ্যে রাষ্ট্রীয় বরাদ্দ প্রদান ও শিক্ষাখাতে জাতীয় বাজেটের ২৫ ভাগ বরাদ্দ রাখতে হবে।

সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাকা নগর শাখার সভাপতি রাফিকুজ্জামান ফরিদ ও সাধারণ সম্পাদক অরূপ দাস শ্যাম এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, করোনা মহামারিতে সারা বিশ্বের সাথে বাংলাদেশেও উদ্বেগজনক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। লকডাউনের কবলে পড়ে দেশের শ্রমজীবী- নিম্নবিত্ত মানুষ না খেতে পেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। ভালো নেই মধ্যবিত্ত পরিবারগুলো। যে সকল ছেলেমেয়েরা স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে তারা বেশিরভাগই নিম্নমধ্যবিত্ত- মধ্যবিত্ত ঘরের সন্তান। বিশেষ করে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের একটা বিরাট অংশ ঢাকা শহরে এসে টিউশন করে মেসে থেকে নিজেদের পড়ালেখার ব্যয়ভার বহন করে। অনেকে আবার টিউশন করে বাড়িতেও টাকা পাঠায়।

হঠাৎ করে লকডাউন পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার ফলে এসব ছাত্রদের বিপাকে পড়তে হচ্ছে। যারা লকডাউনে বাড়ি যেতে পারেনি তারা একবেলা খেয়ে কখনো বা না খেয়ে বা কখনো মাজারে খেয়ে দিন পার করছেন। এর ওপরে আছে বাড়ি ভাড়া-মেস ভাড়ার চাপ। কেবল ঢাকা শহরেই প্রায় ৪০ লাখ শিক্ষার্থী মেসে অবস্থান করেন। মালিকরা অব্যাহতভাবে বাড়ি ভাড়া-মেস ভাড়ার জন্য তাগাদা দিচ্ছে। পরিস্থিতির আরও অবনতি হচ্ছে। এ অবস্থা দীর্ঘদিন অব্যাহত থাকলে টিউশন করা শিক্ষার্থীরা আরও চরম সংকটে নিমজ্জিত হবে। শুধু নিজের জীবনযাপনের খরচ নয় এর উপর যদি তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন-ফিও দিতে হয়ে তাহলে অনেকের শিক্ষাজীবন চালানোই দুষ্কর হয়ে পড়বে। ফলে লাখ লাখ শিক্ষার্থীদের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে, তাদের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে বিশেষ বরাদ্দ দেয়া প্রয়োজন।

নেতারা বলেন, এমন অবস্থায় আমাদের দাবি- লকডাউন চলা অবস্থায় ছাত্রদের বাড়ি ভাড়া, মেস ভাড়া মওকুফ করতে হবে। দরিদ্র শিক্ষার্থীদের তালিকা করে তহবিল গঠন করে তাদেরকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করতে হবে। আমরা আরও দাবি করছি, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের এই বছরের বেতন-ফি মওকুফ করতে হবে। এত কিছু করা সম্ভব একমাত্র রাষ্ট্রীয় বরাদ্দ বাড়ানোর মধ্য দিয়ে। তাই দেশের এই দুর্যোগকালীন পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

তারা আরও বলেন, আমরা আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে শিক্ষার সংকট নিরসনে প্রতি বছর বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ দাবি করে আসছি। কিন্তু সরকার কখনো শিক্ষাখাতে পর্যাপ্ত বাজেট ঘোষণা করেন না। বরং প্রতিবছর আনুপাতিক হারে শিক্ষা খাতে বরাদ্দ কমছে। করোনা দুর্যোগে শিক্ষার্থীদের সংকট নিরসনে এবং শিক্ষার সার্বিক মানোন্নয়নে আমরা এককালীন বিশেষ বরাদ্দ এবং জাতীয় বাজেটে শিক্ষাখাতে ২৫ ভাগ বরাদ্দ দেয়ার দাবিও করছি।

এসব দাবিগুলো পূরণে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণের জন্য ঢাকা জেলা প্রশাসক বরাবর অনলাইনে স্মারকলিপি পেশ করা হয়েছে বলে জানান নেতারা।

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিশেষ-সংবাদ

কপিরাইট © ২০১৮ -২০২১ স্কুল নিউজ। প্রধান সম্পাদক ডঃ মোমেনা খাতুন। ১৮/৬ মোহাম্মদিয়া হাউজিং, মোহাম্মদপুর, ঢাকা। যোগাযোগঃ info@schoolnews.com.bd